বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:০০ পূর্বাহ্ন৭ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

৭ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

এবারও পারল না বাংলাদেশ

এবারও পারল না বাংলাদেশ

ছবিঃ ক্রিকইনফো

স্পোর্টস ডেস্কঃ এশিয়া কাপ ও নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে জিততে জিততে হেরে ছিল বাংলাদেশ। রবিবার সেই ভুলের মাশুল দেয়ার সুযোগ ছিল টাইগারদের সামনে। এজন্য এদিন টস জিতে ভারতকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে ১৭৪ রানে আঁটকে দিয়েছিল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। ব্যাটিংয়ের শুরুটা ভালো না হলেও মোহাম্মদ নাঈম ও মোহাম্মদ মিথুনের তৃতীয় উইকেট জুটিতে জয়ের আশায় জাগিয়েছিল টিম বাংলাদেশ। কিন্তু মিডেল অর্ডার ও লোয়ার মিডেল অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা ব্যর্থ হওয়ায় এবারও ভারতের বিপক্ষে শিরোপা জেতা হলো না সফরকারীদের।

শনিবার নাগপুরের বিদর্ভ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ হেরেছে ৩০ রানে। এদিন টস জিতে বল হাতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ভারতের ৫ উইকেট তুলে নিয়ে ১৭৪ রানে থামিয়ে দেয় বাংলাদেশ। জবাবে নাঈম শেখের (৮১) দুর্দান্ত ইনিংসের পরও টাইগাররা ১৯.২ ওভারে গুটিয়ে যায় ১৪৪ রানে। 

বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৮ বলে ১০ চার ও ২ ছয়ে ৮১ রান করেন মোহাম্মদ নাঈম শেখ। এদিকে ২৯ বলে ২ চার ও ১ ছয়ে ২৭ রান করেন মিথুন। এ দুই তারকা ছাড়া আর কোন ব্যাটসম্যান এদিন নিজেদের মেলে ধরতে পারেননি।

ভারতের সফল বোলার দিপক চাহার। এ পেসার ৭ রানে হ্যাটট্রিকসহ নেন ৬ উইকেট। এদিকে শিবম দুবে নেন ৩০ রানে ৩ উইকেট। চাহেল নেন ৪৩ রানে ১ উইকেট।

এরআগে ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৩ বলে ৬২ রান করেন শেয়াস আইয়ার। এদিকে লোকেশ রাহুলের ব্যাট থেকে আসে ৩৫ বলে ৭ চারে ৫২ রান। টাইগারদের সফল বোলার শফিউল ও সৌম্য সরকার। দু’জনই নেন ২টি করে উইকেট। একজন ৩২ অন্যজন দিয়েছেন ২৯ রান।

আফিফও করলেন শুন্য

নাঈমকে বিদায়ের পরের বলেই আফিফ হোসেন ফিরিয়ে গেলেন দুবের বলে দুবেকে ক্যাচ দিয়ে।

দুবের ক্রস সিম ডেলিভারি আফিফের শরীর সোজা, শর্ট অব লেংথ। আফিফ পারলেন না ঠিকমতো খেলতে। ব্যাটের কানায় লেগে গেল ফিরতি ক্যাচ। সহজ ক্যাচ নিয়ে উল্লাসে ভাসলেন দুবে।

দারুণ ইনিংস খেলে ফিরে গেলেন নাঈম 

নাঈম শেখের ব্যাটে বাংলাদেশের আশা টিকে ছিল বাংলাদেশের। কিন্তু দুর্দান্ত খেলতে থাকা এ তরুণ শিবম দুবের ইয়র্কারে বোল্ড হয়ে ফেরেন।

দুবের মিডেল স্টাম্পে করা ইয়র্কার লেন্থের বলটি নাঈম খেলতে চেয়েছিলেন জায়গা বানিয়ে। কিন্তু এ বাঁহাতি ব্যাট নামিয়েও থামাতে পারেননি বল। যে কারণে উড়ে যায় বেলস। তাতে ১০ চার ও ২ ছয়ে ৪৮ বলে ৮১ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলে ফিরলেন নাঈম।

প্রথম বলেই ফিরলেন মুশফিক

সিরিজ নির্ধারনী ম্যাচে মুশফিকুর রহিমের জ্বলে ওঠার খুব দরকার ছিল। কিন্তু এ ডানহাতি রবিবার ফিরে গেলেন নিজের প্রথম বলেই।

শিবম দুবের ডেলিভারিটি ছিল অফ স্টাম্পের বাইরে। মুশফিক চেয়েছিলেন থার্ডম্যানে গ্লাইড করে রান নিতে। কিন্তু বলটি ছিল স্লোয়ার। ব্যাটের কানায় লেগে বল লাগে স্টাম্পে। মুশফিক ফিরলেন তৃতীয়বার টি-টোয়েন্টিতে গোল্ডেন ডাকের শিকার হয়ে।

মিথুন ফিরলেন জুটি গড়ে

চাহারের স্লোয়ার ডেলিভারি উড়িয়ে মেরে লং অফে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন মিথুন। ফেরার আগে ২৯ বলে ২৭ রানে ফিরলেন এ ডানহাতি। তার বিদায়ে ভাঙল নাঈমের সঙ্গে ৯৮ রানের জুটি।

বাংলাদেশের সেঞ্চুরি

নাঈম শেখ ও মোহাম্মদ মিথুনের দারুণ জুটিতে রান তাড়ায় এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ১১.৫ ওভারের দলের রান স্পর্শ করেছে ১০০। তাতে নাঈমের রানই ৬৪।

নাঈমের হাফসেঞ্চুরি

শুরুর ধাক্কা কাটিয়ে বাংলাদেশকে কক্ষ পথে ফেরালেন নাঈম শেখ। এ বাঁহাতি এরইমধ্যে তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের প্রথম হাফসেঞ্চুরি।

রবিবার নাঈম ফিফটি স্পর্শ করেছেন ৩৪ বলেই। ৭ চারের সঙ্গে ইনিংসে ছক্কা ছিল ১টি।

নাঈম-মিথুনের জুটিতে পঞ্চাশ

তৃতীয় উইকেট জুটিতে ৪৫ বলে পঞ্চাশ রানের দেখা পেয়েছেন মোহাম্মদ নাঈম ও মোহাম্মদ মিথুন।

লিটনের পরপরই ফিরে গেলেন সৌম্য

প্রথম বলেই আউট হয়ে ফিরে গেলেন সৌম্য সরকার। দিপক চাহারের অফ স্টাম্পের বাইরে, ফুল লেংথ থেকে একটু টেনে করা বল গ্যাপে মারেও জোর পাননি তিনি। যে কারণে বল চলে যায় শিবম দুবের কাছে।

ফের ব্যর্থ লিটন

শুরুটা দারুণ করেছিলেন লিটন। কিন্তু নিজেকে ধরে রাখতে পারলেন না। দুই অঙ্ক না ছুঁয়েই দিপক চাহারের শর্ট অব লেংথ বলটিতে পুল করতে গিয়ে সীমানায় ওয়াশিংটন সুন্দরের হাতে ধরা পড়েন তিনি।

ফেরার আগে ৮ বলে ৯ রানে ফিরলেন লিটন। বাংলাদেশ ১ উইকেটে ১২।

জিততে বাংলাদেশের চাই ১৭৫ রান

শুধুমাত্র একটি জয় থেকে দূরে বাংলাদেশ। সেটা হলেই প্রথমবারের মতো ভারতের মাটিতে কোন সিরিজ জয়ের ইতিহাস গড়বে সফরকারীরা। সে লক্ষ্যে শনিবার টস জিতে আগে বল হাতে লোকেশ রাহুল ও শ্রেয়াস আইয়ার ঝড় থামিয়ে স্বাগতিকদের ১৭৪  রানে আটে থামিয়ে দিয়েছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। এজন্য তাদের ইতিহাস গড়তে দরকার নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৭৫ রান।

নাগপুরের বিদর্ভ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে টস জিতে শনিবার বল হাতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ভারতের ৫ উইকেট তুলে নিয়ে ১৭৪ রানে থামিয়েছে বাংলাদেশ। স্বাগতিকদের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৩ বলে ৬২ রান করেন শেয়াস আইয়ার। এদিকে লোকেশ রাহুলের ব্যাট থেকে আসে ৩৫ বলে ৭ চারে ৫২ রান। টাইগারদের সফল বোলার শফিউল ও সৌম্য সরকার। দু’জনই নেন ২টি করে উইকেট। একজন ৩২ অন্যজন দিয়েছেন ২৯ রান।

সৌম্য থামালেন শ্রেয়াস ঝড় 

পান্টের পরপরই সৌম্য থামালেন শ্রেয়াস আইয়ারকে। সৌম্যর বলটি ছিল স্লোয়ার। শ্রেয়ার উড়িয়ে মারতে চেয়েছিলেন। কিন্তু টাইমিং পাননি ঠিকমতো। ব্যাট ঘুরে যায় হাতের ভেতর। লং অফে ক্যাচ নেন লিটন। ফেরার আগে

৫ ছয়ে এ ডানহাতি ৩৩ বলে ৬২ রানে বিদায় নেন।

পান্টকে ফেরালেন সৌম্য

ঋশব পান্টকে বোল্ড করলেন সৌম্য সরকার। বাঁহাতি পান্ট চেয়েছিলেন জায়গা বানিয়ে স্লগ করতে। সৌম্য করেন স্লোয়ার বল। ব্যাটে-বলে হয়নি, উড়ে যায় বেলস। ফেরার আগে ৯ বলে ৬ রান করেন পান্ট।

২৭ বলে শ্রেয়াস আইয়ারের হাফসেঞ্চুরি

প্রথম বলেই তুলে দিয়েছিলেন ক্যাচ। পয়েন্টে আমিনুল বিপ্লবের কল্যাণে শ্রেয়াস আইয়ার বঁচে গিয়েছিলেন। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাননি তিনি। বলতে গেলে ঝড় তুলে মাত্র ২৭ বলে ১ চার ও ৫ ছয়ে হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন তিনি।

বিপজ্জনক রাহুলকে তুলে নিলেন আল আমিন

শুরু থেকেই দারুণ খেলছিলেন লোকেশ রাহুল। একের পর এক বড় শটে বাউন্ডারিও আদার করে নিচ্ছেলেন। তাতে বেশ চাপে পড়ে যাচ্ছিল বাংলাদেশ। শেষ পর্যন্ত নিজের দ্বিতীয় স্পেলে ফিরে বিপজ্জনক হয়ে ওঠা রাহুলকে ফেরালেন আল আমিন।

আল আমিনের স্লোয়ার বুঝতে পারেননি রাহুল। খেলতে গেলেন বড় শট। কিন্তু মিস টাইমিংয়ে বল ব্যাটের উপরের অংশে লেগে মিড অফের মাথার উপরে উঠে যায়। সহজ ক্যাচ নিতে ভুল করেননি লিটন দাস। ফেরার আগে রাহুল করেন ৩৫ বলে ৭ চারে ৫২ রান।

রাহুলের হাফসেঞ্চুরি

দু্ই ওপেনার দ্রুত ফিরলেও ব্যাট হাতে ঝড় তুলে এগোচ্ছেন লোকেশ রাহুল। এ ডানহাতি এরইমধ্যে ৩৩ বলে তুলে নিয়েছেন হাফসেঞ্চুরি।

আইয়ারের  সহজ ক্যাচ ছাড়লেন বিপ্লব

ধাওয়ানকে ফেরানোর পরপরই শ্রেয়াস আইয়ারের উইকেটও পেতে পারতেন শফিউল ইসলাম। কিন্তু তাকে হতাশ করেন আমিনুল ইসলাম বিপ্লব।

শফিউলের লেংথ বল ছিল অফ স্টাম্পের বেশ বাইরে ছিল। জায়গায় দাঁড়িয়ে শট খেলে শ্রেয়াস সেটিই তুলে দিয়েছিলেন পয়েন্টে কিন্তু সেখানে দাঁড়ানো বিপ্লব একবারে সহজ ক্যাচ পারেননি তালুবন্দী করতে।

ধাওয়ানকে ফেরালেন শফিউল

শফিউলের লেন্থ বল ক্রিস ছেড়ে বের হয়ে বড় শট খেলতে চেয়েছিলেন ধাওয়ান। কিন্তু ঠিকমতো টাইমিং করতে পারেননি তিনি। যে কারণে বল ডিপ-মিডউইকেটের মাথার উপর উঠে যায়। সেখানে দাঁড়ান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ লুফে নেন সহজ ক্যাচ। ফেরার আগে ধাওয়ান করেন ১৬ বলে ১৯ রান।

শফিউলের বলে রোহিত

চলতি টি-টোয়েন্টি সিরিজে দ্বিতীয়বারের মতো রোহিত শর্মাকে সাজঘরে ফেরালেন শফিউল ইসলাম। আগেরবার ছিল এলবিডব্লিউ, এবার বোল্ড!

রবিবার ভেতরে ঢোকা ডেলিভারি ব্যাট-প্যাডের ভেতরে ফাঁক রেখে আলসে ভঙ্গিমায় ফ্লিক মতো করতে চেয়েছিলেন রোহিত। বল তার ব্যাটের কানায় লেগে আঘাত করে লেগ স্টাম্পে। বাংলাদেশ পেয়ে কাঙ্ক্ষিত সাফল্য। ফেরার আগে ৬ বলে ২ রান করেন রোহিত। ভারতের রান দ্বিতীয় ওভারে ১ উইকেটে ৩।

মোসাদ্দেক আউট, মিথুন ইন

সিরিজ নির্ধারনী ম্যাচে বাংলাদেশ একাদশে এ্সেছে একটি পরিবর্তন। অফ ফর্মে থাকা মোসাদ্দেক হোসেন বাদ পড়েছেন। তার জায়গা নিয়েছেন মোহাম্মদ মিথুন।

বাংলাদেশ একাদশ: 

সৌম্য সরকার, লিটন দাস, নাঈম শেখ, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, আফিফ হোসেন, মোহাম্মদ মিথুন, আমিনুল ইসলাম, শফিউল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান, আল আমিন হোসেন।

টস বাংলাদেশ : ব্যাটিংয়ে ভারত

জিতলেই ইতিহাস। এমন ম্যাচে টস জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ। তবে উইকেট ও আবহওয়ার কথা চিন্তা করে সফরকারীরা নিয়েছে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত।

নাগপুরে এখন পর্যন্ত ১১টি টি-টোয়েন্টি হয়েছে, এর আটটিতে জিতেছে আগে ব্যাটিং করা দল। তারপরও টস জেতা বাংলাদেশ দল এ ম্যাচে আগে ফিল্ডিংয়ে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। হয়তো শিশিরের কথা মাথায় রেখেই বল হাতে নেয়াটা ভালো মনে করেছেন টাইগার অধিনায়ক।

এরআগে সিরিজের প্রথম ম্যাচে দিল্লিতে ৭ উইকেটে জিতে সিরিজে এগিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু পরের ম্যাচে রাজকোটে ৮ উইকেটে হেরে যায় টিম টাইগার্স। যে কারণে আজকের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি সফরকারীদের জন্য হয়ে দাঁড়িয়েছে অলিখিত ফাইনাল।

দেশের মাটিতে এখনও তিন ম্যাচের কোনো টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারেনি ভারত। মাহমুদউল্লাহর দলের সামনে তাই আজ ইতিহাস গড়ার হাতছানি। সে লক্ষ্য পূরণ করতে তৈরিও টাইগাররা। যদিও স্বাগতিকরা সে সুযোগ দিতে চায় না রাসেল ডমিঙ্গোর শিষ্যদের।

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ-ভারত ১০টি টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হয়েছে। এরমধ্যে টাইগাররা জিতেছে মাত্র ১টি। তবে সে সব এখন অতীত। আজকের ম্যাচটি জিতলেই যে সফরকারীদের ক্রিকেট পৌঁছে যাবে অনন্য উচ্চতায়। সে লক্ষ্য পূরণেই আজ সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে তৈরি টিম বাংলাদেশ।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
© Daily Jago কর্তৃক সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT