বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ০১:২৮ পূর্বাহ্ন১৩ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১৩ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

‘উগ্রবাদ সভ্যতা ও মানবতার শত্রু’

‘উগ্রবাদ সভ্যতা ও মানবতার শত্রু’

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, ‘উগ্রবাদ বৈশ্বিক সমস্যা, যা সভ্যতা ও মানবতার শত্রু। আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক পর্যায়ে এক সাথে কাজ করে উগ্রবাদ নির্মূল করে শান্তিময় বিশ্ব প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব।’

সোমবার (৯ ডিসেম্বর) রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে কাউন্টার টেররিজম এ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম এবং স্টপ ভায়োলেন্স কোয়ালিশন সেক্রেটারিয়েট, রুপান্তর এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ‘উগ্রবাদ বিরোধী জাতীয় সম্মেলন-২০১৯’ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, সন্ত্রাসবাদ ও উগ্রবাদ একটি বৈশ্বিক সমস্যা। কোনো দেশ একক ভাবে এ সমস্যা মোকাবিলা করতে পারবে না। আরও কঠিন রূঢ় বাস্তবতা হলো- বিশ্বের সব দেশ সন্ত্রাসবাদ ও উগ্রবাদের ভয়ংকর হুমকির সম্মুখীন। এ থেকে নিজেদের সুরক্ষিত রাখতে হলে আমাদের আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিকভাবে কাজ করতে হবে।

স্পিকার বলেন, উগ্রবাদ বা জঙ্গিবাদ বিশ্বের কোথাও গ্রহণযোগ্য নয়। এগুলো সভ্যতার শক্র, মানুষের শত্রু। এ সমস্যাগুলো ব্যক্তিগত ও সমষ্টিগতভাবে মোকাবিলা করতে হবে। বর্তমান সময়ে এটি বিশ্বকে এক বিশাল ঝুঁকিতে ফেলেছে।

তিনি বলেন, কীভাবে একজন সাধারণ মানুষ এ উগ্রবাদ বা জঙ্গিবাদে ঝুঁকে পড়ে এর সঠিক কারণগুলো খুঁজে বের করতে হবে। উগ্রবাদীর কোনো জাতি বা দেশে নেই। এদের কোনো ধর্ম নেই। এদের চিন্তা একটাই, সেটি হলো কীভাবে দেশের ক্ষতি করা যায়।

শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, উগ্রবাদ ও জঙ্গিবাদ জিরো টলারেন্সে আনতে হলে প্রথমেই দারিদ্র্য দূর করতে হবে। তারপর তরুণদের জন্য কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে, যাতে কেউ হতাশায় না ভোগে। তাদের সঠিক পথে আনতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের এই ভূখণ্ড কোনো উগ্রবাদ বা জঙ্গিবাদের প্রশিক্ষণের জন্য ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না। কোনোভাবেই যেন সেটি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। পাশাপাশি অর্থের উৎস কোথা থেকে আসে সেদিকেও খেয়াল রাখা জরুরি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী, বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল আর মিলার এবং জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী মিয়া সেপ্পো বক্তব্য রাখেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে স্পিকার উগ্রবাদ বিরোধী জনসচেতনতা বিষয়ক বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন।

 

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
© Daily Jago কর্তৃক সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT